৩১.১ মিলিয়ন ডলারে বিক্রি হল হাতঘড়ি

৩১.১ মিলিয়ন ডলারে বিক্রি হল হাতঘড়ি

সাম্প্রতিক বিশ্ব

সুইজারল্যান্ডের ঘড়ি কোম্পানি পেটক ফিলিপ্পির ব্যান্ডের একটি ঘড়ি ৩১.১ মিলিয়ন ডলারে বিক্রি হল হাতঘড়ি। যা এ যাবত কালের সবচেয়ে দামি ঘড়ি।

এই সপ্তাহের শনিবার (৯ নভেম্বর) সুইজারল্যান্ডের জেনেভাতে নিলামের জন্য তোলা হয় দ্যা গ্র্যান্ডমাস্টার ছিম ৬৩০০এ-০১০ মডেলের এই ঘড়িটি। এ সময় ঘড়িটি ৩১.১ মিলিয়ন ডলার দামে কিনে নেন অজ্ঞাত এক ক্রেতা। তার পরিচয় সম্পর্কে কিছুই জানা যায়নি।

আরো পড়ুন :  টেসলার নতুন রোবট ডিম ভাজতে পারে!

ঘড়িটির বিক্রিত সকল অর্থ ডুচেন মাসকুলার ডিসস্ট্রফির গবেষণায় ব্যয় করা হবে বলে জানায় পেটক ফিলিপ্পি কোম্পানি।

আরো পড়ুন: গাজায় আল শিফা হাসপাতালে ইসরায়েলী সেনা, জরুরি বিভাগ ও প্রসূতি ওয়ার্ডেও হামলা

ঘড়িটির বেল্টগুলো নির্মিত হয়েছে স্টেইনলেস স্টিল দ্বারা। এর ভিতরের প্লেটটি ১৮ ক্যারেটের গোলাপি কালারের ও কাঁটাগুলো কালো রঙয়ের স্বর্ণ দ্বারা নির্মিত। এছাড়া ঘড়িটিতে এক সঙ্গে দুইটি অঞ্চলের সময় দেখা যাবে। এছাড়াও ঘড়িতে ব্যবহার হয়েছে কুমিরের চামড়াও।

আরো পড়ুন :  কর্মীদের বেতন দিতে রাখলেন বাড়ি বন্ধক

এর আগে ২০১৭ সালে পৃথিবীর সবচেয়ে দামি ঘড়ি হিসেবে ১৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে বিক্রি হয় রোলেক্স ডাইটাওনের। আর তাকে টপকে সবচেয়ে দামি ঘড়ির খেতাবটি ছিনিয়ে নিল পেটক ফিলিপ্পির ব্যান্ডের ঘড়িটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *