Gaza 6

গাছ কেটে ফেলায় প্রতিবেশীকে গুলি করে হত্যা

সাম্প্রতিক বিশ্ব

উত্তরপ্রদেশের বিজনরে গাছ কাটা নিয়ে প্রতিবেশীকে গুলি করে হত্যা করলেন ভারতের জনপ্রিয় টিভি অভিনেতা ভুপিন্দর সিং। খামারবাড়ির পাশে বেড়ে ওঠা গাছটির মালিক কে, সেটি নিয়েই ওই বাড়ির মালিকের সঙ্গে দ্বন্দ শুরু হয় ভূপিন্দর সিং-এর।

অভিনেতা ভূপিন্দর সিং-এর  উত্তরপ্রদেশের কুয়ানখেদা গ্রামের বাড়িতে একটি খামারবাড়ি রয়েছে। খামারে বেড়া দেওয়ার জন্য ভুপিন্দর কয়েকটি ইউক্যালিপটাস গাছ কাটার সিদ্ধান্ত নেন।খামারের পাশেই প্রতিবেশী গুরদীপ সিংয়ের কৃষি জমি।সেখানে কয়েকটি  ইউক্যালিপট্যাস গাছ ছিল। ওই গাছ কাটা নিয়ে প্রতিবেশী গুরদীপের সঙ্গে ভুপিন্দরের কথা কাটাকাটি এবং এক পর্যায়ে মারামারিতে লিপ্ত হন তারা। এরপর ভুপিন্দর ও তার তিন সহযোগী গুরদীপ সিংয়ের পরিবারের উপর হামলা করে।

আরো পড়ুন :  ইসরায়েলে ১৪ হাজার গোলা পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

আরও পড়ুনঃ কর্ণফুলী নদীতে ডুবে গেলো জাহাজ

মারামারি শুরু হলে ভূপিন্দর সিং রাগের মাথায় নিজের লাইসেন্স করা রিভালভার বের করে প্রতিপক্ষের দিকে এলোপাতাড়ি গুলি ছোড়েন। এ সময় ভুপিন্দরের গুলিতে ঘটনাস্থলেই গুরদীপের ২২ বছরের ছেলে গোভিন্দ নিহত হন এবং গুরদীপ সিং, তার আরেক ছেলে বুটা সিং এবং স্ত্রী মীরাবাই  আহত হন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ওইদিনই, মৃত গোভিন্দ-র মামা বাদী হয়ে অভিনেতা ভূপিন্দর সিং-এর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। ওই অভিযোগের ভিত্তিতে ভুপিন্দর সিংকে হত্যা, হত্যাচেষ্টা এবং উদ্দেশ্যমূলকভাবে আঘাত করাসহ আরো কয়েকটি অভিযোগে গ্রেফতার করে স্থানীয় পুলিশ। এসময়  অভিনেতার সহযোগীরা পলাতক  থাকলেও পরবর্তীতে পুলিশ তার তিন সহযোগীকেও গ্রেপ্তার করেছে বলে জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এনডিটিভি।

আরো পড়ুন :  কোরআন পোড়ালে হতে পারে ২বছরের জেল

১৯৯৮ সালে ‘শাম ঘনশাম’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে যাত্রা শুরু করেন তিনি। এ ছাড়াও তিনি ‘৮৫৭ ক্রান্তি’, ‘ইয়ে পেয়ার না হোগা কাম’, ‘মধুবালা—এক ইশক এক জুনুন’, ‘এক হাসিনা থি’, ‘তেরে শেহের মে’, ‘কালা টিকা’ ও ‘রিশতেঁ কা চক্রব্যূহ’ সহ আরো বেশ কয়েকটি জনপ্রিয় ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *