GM kader

নির্বাচন নিয়ে আস্থাহীনতায় আছে দেশের মানুষ: জিএম কাদের

রাজনীতি বাংলাদেশ

জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ও রংপুর-৩ আসনের প্রার্থী গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদের বলেছেন, দেশের মানুষ নির্বাচন নিয়ে আস্থাহীনতায় আছে। আওয়ামী লীগ অন্যায়ভাবে সব দখল করে নেবে কি না- এ নিয়ে ভোটাররা এখনো শঙ্কায়।

রংপুরে ভোটের পরিবেশ সম্পর্কে জিএম কাদের বলেন, এখানো ভোটের পরিবেশ ভালো আছে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত কি হয়, সেটা দেখার পালা, তবে ভোটাররা কেন্দ্রে আসবেন কি না বা ভোট দিতে পারবেন কি না আর ভোট দিলেও সঠিকভাবে গণনা ও ফলাফল সুষ্ঠু হবে কি না, তা নিয়ে সংশয় আছে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

নির্বাচন সুষ্ঠু না হলে চলমান সংকট ঘনীভূত হবে। দেশে বড় ধরনের সমস্যা তৈরি হতে পারে।

বৃহস্পতিবার (৪ জানুয়ারি) দুপুরে রংপুর নগরের সেনপাড়ার স্কাই ভিউ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ শঙ্কা প্রকাশ করেন।

আরো পড়ুন :  গভীর নিম্নচাপে রূপ নিচ্ছে ঘূর্ণিঝড় ‘মিধিলি'

সব উপেক্ষা করে জাপার প্রার্থীরা মাঠে সরব আছে এবং থাকবে। এছাড়া সব জায়গায় ফ্ল্যাগ তুলে রাখতে এবার অধিকাংশ আসনে প্রার্থী দিয়েছে জাতীয় পার্টি। ১৯৯০ এর পর ৩০০ আসনে ফাইট করার যোগ্যতা পার্টির ছিল না, এখনো নেই। এবাবের নির্বাচনে ৪০/৫০ জন প্রার্থী নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোয় বড় ফ্যাক্টর হবে না।

জাপা চেয়ারম্যান বলেন, দলের যারা নির্বাচন থেকে সরে যাচ্ছেন, ভোটের পরে ভেরিফাই করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টি কো-চেয়ারম্যান ও রংপুর সিটি মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, রংপুর-৪ (পীরগাছা-কাউনিয়া) আসনের জাপার প্রার্থী মোস্তফা সেলিম, জেলা জাপার সদস্য সচিব আব্দুর রাজ্জাক, মহানগর জাপার সাধারণ সম্পাদক এসএম ইয়াসীর, পার্টির চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা আলাউদ্দিন মিয়া, কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক সম্পাদক আজমল হোসেন লেবু, কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক শাফিউর রহমান শাফি, রংপুর মহানগরের সিনিয়র সহ-সভাপতি লোকমান হোসেন, সহ-সভাপতি জাহেদুল ইসলাম, জেলা জাতীয় মহিলা পার্টির সম্পাদিকা নাহিদ ইয়াসমিন ও সদর উপজেলা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক মাসুদ মাসুদ নবী মুন্না, জাতীয় যুব সংহতি রংপুর জেলা সভাপতি হাসানুজ্জামান নাজিম।

আরো পড়ুন :  নৌকায় মনোনয়ন পেলেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস, বাদ পড়লেন মাহিয়া মাহি

দ্বাদশ সাসদ নির্বাচনে রংপুর-৩ (সদর উপজেলা ও সিটি কর্পোরেশনের ৯ থেকে ৩৩ নম্বর ওয়ার্ড) আসনে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান দলীয় প্রতীক লাঙ্গল নিয়ে লড়ছেন। এছাড়া বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির আব্দুর রহমান রেজু ( প্রতীক: একতারা), বাংলাদেশ কংগ্রেসের একরামুল হক ( প্রতীক: ডাব), জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সহিদুল ইসলাম (প্রতীক: মশাল), ন্যাশনাল পিপলস পার্টির শফিউল আলম  (প্রতীক: আম) এবং তৃতীয় লিঙ্গের স্বতন্ত্র প্রার্থী আনোয়ারা ইসলাম রানী (প্রতীক: ঈগল) ভোটের মাঠে লড়ছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *