২৫ হাজার টাকায় যাওয়া যাবে রাশিয়া, রাশিয়ায় চাকরি,

২৫ হাজার টাকায় যাওয়া যাবে রাশিয়া

চাকরি বাংলাদেশ

২৫ হাজার টাকায় যাওয়া যাবে রাশিয়া। প্রয়োজন নেই কোন দক্ষতার। যারা ভাগ্যের চাকা ঘোরাতে নিত্য নতুন রাস্তা খুঁজে তাদের জন্য সুখবর নিয়ে হাজির হয়েছে বোয়েছেল। কোন ভাষা জ্ঞান কিংবা কর্ম দক্ষতা ছাড়াই যারা মোটা অংকের বেতনে কাজের খোঁজ করছেন তাদের জন্য রাশিয়া হতে পারে প্রথম পছন্দ।

চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক কীভাবে যাবেন বিশ্বের অন্যতম সমৃদ্ধ দেশটিতে। সেই সাথে জানবো লোভনীয় বেতন এর পাশাপাশি কোন কোন বিশেষ সুযোগ সুবিধা পাবেন বাংলাদেশিরা।

বাংলাদেশের পরীক্ষিত বন্ধু হিসেবে রাশিয়ার নাম রয়েছে সবার উপরে, গত সেপ্টেম্বরে পারমাণবিক শক্তিধর দেশ টি ৩০ টির বেশী বন্ধু পূর্ণ ও নিরপেক্ষ দেশের একটি তালিকা প্রকাশ করেছেন। আর এই বিশেষ তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে বাংলাদেশে।

সম্প্রতি দেশটির একাধিক খাতে সৃষ্ট সংকটের ফলে দুয়ার খুলেছে বাংলাদেশের বেকার জনগোষ্ঠীর। বোয়েসেল এর দেওয়া তথ্যমতে মাত্র ২৫ হাজার টাকায় যাওয়া যাবে রাশিয়া বা পুতিনের দেশে।

এর জন্য প্রয়োজন নেই কোন ভাষা জ্ঞান কিংবা দক্ষতার। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে যে সরকারিভাবে জাহাজ নির্মাণের কাজে বিদেশী কর্মী নিয়োগের ঘোষণা দিয়েছে রাশিয়া। ২৫ হাজার টাকায় যাওয়া যাবে রাশিয়া।

আরো পড়ুন: একজন পুলিশ কনস্টেবল এর বেতন কত? এবং অন্যান্য সুবিধা

মূলত ইউক্রেনের সাথে যুদ্ধের মধ্যে আয়তনে বিশ্বের বৃহত্তম দেশ টির বেসামরিক জাহাজের বিভিন্ন যন্ত্রাংশ ও সরঞ্জাম সরবরাহ নিয়ে সংকটে পড়ার পর প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন রাশিয়ার জাহাজ নির্মাণ শিল্প কে শক্তিশালী করার ইঙ্গিত দেন।

আরো পড়ুন :  বিশ্বজুড়ে বায়ুদূষণের শীর্ষে ঢাকা

পুতিনের অনুমতি পেয়ে রাশিয়ার জাহাজ খাতে জনশক্তি আমদানিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। স্ক্যাফোল্ডিং, মেরিন, পাইপ ফিটার, ওয়েল্ডার এবং দুভাশি এই পথগুলোতে মূলত থাকা-খাওয়ার সুযোগ-সুবিধা দিয়ে কর্মী নিয়োগের ঘোষণা দেয়া হয়।

তবে লোভনীয় সব সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হলেও চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত কর্মীদের সর্বনিম্ন তিন মাস -১১ থেকে -৫২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় কাজ করতে হবে। এক্ষেত্রে যে সকল কর্মীদের ঠান্ডা জনিত এলার্জি সমস্যা রয়েছে তাদের আবেদন না করাই ভালো।

তবে এ ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাবেন যে সকল প্রার্থীর দক্ষিণ কোরিয়া সিঙ্গাপুর বা অন্য কোনো দেশের আন্তর্জাতিক জাহাজ নির্মাণ শিল্পে ন্যূনতম ৬ মাস কাজের অভিজ্ঞতা আছে।

তবে জাহাজ নির্মাণ খাতে রাশিয়ায় বিলাসী জীবন যাপনের সুযোগ রয়েছে রন্ধনশিল্পীদের (বাবুর্চি)। এক্ষেত্রে সরকারিভাবে রাশিয়া নেওয়া না হলেও সবচেয়ে বেশি বেতন এবং সেইসাথে সবচেয়ে বেশি সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হচ্ছে।

রাশিয়ার সাহেবদের রন্ধনশিল্পী যারা সিদ্ধহস্ত তাদের জন্য রাশিয়া অপেক্ষা করছে আকর্ষণীয় সব সুযোগ-সুবিধা নিয়ে। এই পেশার লোকদের ওয়ার্কপারমিট নিয়ে যেমন ঝামেলা পোহাতে হয় না তেমনি ভাবে ভিসা সংক্রান্ত জটিলতা ও কম।

আরো পড়ুন :  খাদ্যের বাড়তি দাম নিয়ে বাংলাদেশের ৭১ শতাংশ পরিবারের উদ্বেগ

বাংলাদেশ থেকে প্রতিবছর বহু রাঁধুনি ছুটে যাচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে। এমনকি মালদ্বীপ, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর ছুটে যাচ্ছে নামমাত্র বেতনে। এদিক থেকে রাশিয়া শেফদের দিচ্ছে যে কোন দেশের তুলনায় বেশি সুযোগ-সুবিধা। এমনকি ঈর্ষণীয় বেতনও পাঁচতারকা হোটেল রেস্টুরেন্টে আর কফিশপ আর বাড়ির চাকুরীতে যাদের বিশেষ দক্ষতা রয়েছে তাদের জন্য সফলতার অপার সম্ভাবনা রয়েছে।

এবার এক নজরে জেনে নেওয়া যাক কত টাকা গুনতে হবে রাশিয়া যআওয়আর জন্য। মোটা অংকের বেতনে রাশিয়ায় গিয়ে কাজের সুযোগ পেতে হলে এবং চাকরির মেয়াদ শেষে দেশে ফিরে আসার বিমান ভাড়া নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান বহন করবে। তবে মাইগ্রেশনের জন্য সাধারণ কর্মীদের ২৫,০০০ এবং দক্ষ কর্মীদের ৭২,০০০ টাকা খরচ করতে হবে। এছাড়া বিধি অনুযায়ী অন্যান্য সরকারি কিছু খরচ পড়বে। এর বাইরে আর কোন টাকা খরচ করতে হবে না।

সিঙ্গাপুরের জাহাজ নির্মাণ শিল্পে বর্তমানে অসংখ্য বাংলাদেশের শ্রমিক কাজ করছেন। সিঙ্গাপুরের পাশাপাশি রাশিয়া বাংলাদেশের জাহাজ নির্মাণ শ্রমিকদের জন্য আরেকটি প্রতিশ্রুতিশীল গন্তব্য হতে যাচ্ছে বলে মনে করছেন অনেকেই।

এক জরিপে দেখা গেছে যে শুধুমাত্র সিঙ্গাপুরে জাহাজ নির্মাণ শিল্পে বর্তমানে ০৭ হাজারেরও বেশি বাংলাদেশি কর্মী দক্ষতা ও সুনামের সঙ্গে কাজ করছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *